Followers

Saturday, July 13, 2013

GALPO HOLEO SHOTTI.... / গল্প হলেও সত্তি .....

Aaj kajer bari gulo chhuti diyechhe tao shokal shokal e uthte holo.....bipodtarini pujo bole katha ...or to uposh kintu barir onyoder to noye... ranna to kortei hobe...ranna banna shere mondire jete hobe.. shekhane giyei pujo diye uposh bhangbe........nanarakhom chinta bhabna korte korte Moyna kaaj sharte laglo.

Moyna , shotti moynar daaker matoi katha bole..... kalo gayer ronger shathe kalo kuchkuche ak dhal chul ki shundor bhabe mishe giyechhe.... mukh khana bhari mishti... chokh duto jyano katha bole....chhotto khato chehara kintu ajosro porishrom korte pare.... korte pare kyano ki korte hoyechhe...

onyer barite ghor muchhte muchhte jakhon barir malkin der payer opor pa tule tv dekhte dyakhe or ki r ichche korena ,shadh hoina sheirakhom akta  jibonjaponer !! Kintu or mon ta ato bhalo ,o eta bhagobaner ' bichar' bole mene niyechhe.......Moyna meyetai amon....or jiboner aktai uddeshyo..chelemeye ra jyano bhalo shikkhapaye...Uchcho madhyomik pash korar por jyano colleger pora chaliye jete pare...

Ar panchta kajer loker borer mato or bor je mod kheye bari pherena ar nijer chahida mite jaoar por lasher mato pore ghumoina etai oke jiboner shathe lore jaoar indhon jugiye deye.....
Moyna nije kintu nesha kore...sharakhon anchol e bendhe rakha 'shikhor' theke tuk tuk kore khete thake...ar majhe moddhe nijer nanoder shathe boshe tari khaye........
akta pagli e bote...mishti pagli.....

Mondire pounchhote pray bikel panchta hoye gyalo... akdike duto meye onyodike katare katare manush, shudhu kalo kalo matha gulo dyakkha jachhe ar nanarakhomer gayer gandho naker moddhe bheshe ashche..khali pete chhilo toh,tai or majhe majhei ga guliye uthchhilo... tao pujo to ditei hobe ..thakurer naam niye egiye chollo....

Pechhon theke ke akjon gaye haath diye jiggesh korlo " Ma, bipodtarinir pujo deben? Amar shonge ashun edike choti rekhe,'dala' ta kine nin".... ghure jei lok tar dike takalo ak jhotkai smriti praye baro bachhor pichhiye gyalo........

Moyna akbar bhablo bhul korchhe, tarpor jakhon dokaner dike takalo ,aro koekta chena mukh dekhe bujhte parlo kono bhul korchhena... ora ori atmiyoswajon...jei chhele ta dala toiri korchhilo kichhudin agei or barite eshechhilo....ar je purohit oke pujor dala kenar katha bolchhilo she holo dusamparker kakashosur... atokhone orao oke dekhte peye egiye eshechhilo.

Or ki jyano mone holo oder ke bollo tara achhe aaj shudhu darshan kore 'mayer ' kachhei dokkhina diye pronam kore nebe ... dui meyer hath shakhto kore dhore taratari mondirer bhetore egiye gyalo........
Aaj mon diye pujo tao korte parlona....aaj or mone holo ei bheeder moddhe lukiye beriye porte parlei bhalo..shetai korlo ......beriyei prothome dhok dhok kore du glass lebur jol khe fello.tarpor niramish khabar kine dui meyer shathe boshe kheye deye barir pothe hana dilo... porer din bhor byalai uthe abar train dhore kajer bari....

Train e jete jete Moynar nijer biyer tarikh ta mone pore gyalo... ei mondirei biye hoechhilo.. shedin mondir theke beriyei dyakhe ashepashe kichu lok or dike takiye achhe... karor hathe bati..karor hathe thala ...kapod jama moila..chheNra khoNra..tara je bhikhiri sheta bojhai jachhilo.. akta chhotto hotel er dike khaoar jonne jakhon ora egote laglo, dekhlo orao pechhone pechhone ashchhe. Phish phish kore bor ke jiggesh korlo" Hyan go,era ke? Tumi ki cheno?"
Or bor bollo," Ei toh, shob amaderi atmiyo...deshe khub kashto toh, mondirer kachhei akta bosti te thake,bhikkhe kore "....

Moyna bujhte perechhilo otai oder 'kaaj'.....jigesh kore boshlo-"Kintu bhikkhe kyano? Hath pa toh theek e achhe,gatore khete duto poisha rojgar korte parena? " Or bor oke chup koriye diyechhilo. Notun biye ,notun sansaar,ei shob niye ar matha ghamaini... or bor akta companyr gari chalato...robibar barite thakto, aje baje golite ghora fera kortona, etai tar kachhe swargo tulyo chhilo....

Rate bor ke na jiggesh kore thakte parlona... Nimai kakar katha boltei or bor bollo "Kyano,she to aj desher bari chhere bohu bachhor ei mondire...bhikkhe kore"
Moyna jakhon shei kakar poite ar tikir katha janalo she to jyano akash theke porlo.... bujhtei parchhilona,ki kore sambhab hoi... oder gyatigushti te keu to brahmon noy...
Tobe ak bhaipo ke  phone kortei she bollo oi kaka e shudhu noi anek abrahmon lokjon peter daye akhun purut sheje ghure byarachhe......

Bikeler ghatonar por kebol bhebei cholechilo...era grame boshe duto fyan bhaat kheleo toh sheta satota ar samman janok hoto.....ei bhabe pother dhare boshe loker kachhe bhikke kore khete manush er bhalo lage? Atyosamman bole ki kichhui nei eder? Tateo holona...akhun abar manush ke bhagobaner barite boshei thokachhe!! Ki shahosh eder!!

Nah eder shathe konodino kono samparko rakhbena...chelemeyedero rakhte debena...bhagoban jakhon jibon ta diyechhen, takhon benche thakar upai tao uni bole deben...poth uni e dekhiye deben. Duto hath, duto pa diyechhen ,drishti diyechhen, buddhi diyechhen. O theek parbe ...partei hobe...ei bhabte bhabte kakhon je ghumiye porlo ......
Mishti Moynar thonte akta mishti hanshi........


আজ কাজের বাড়ি গুলো ছুটি দিয়ছছে তাও সকাল সকালই উঠতে হলো ....বিপদতারিনি পুজো বলে কথা ...ওর তো উপোস কিন্তু বাড়ির অন্য দের তো নয় .. রান্না তো করতেই হবে...রান্না বান্না শেরে মন্দিরে  যেতে হবে.. সেখানে গিয়েই পুজো দিয়ে উপোস ভাংবে.......নানারকমের চিন্তা ভাবনা করতে করতে ময়না কাজ সারতে লাগলো.
ময়না , সত্তি ময়নার  ডাকের মতই কথা  বলে..... কালো গায়ের রংএর সাথে কালো কুচ্‌কুচে এক  ঢাল চুল কী সুন্দর ভাবে মিশে গিয়েছে .... মুখ খানা ভারি মিষ্টি... চোখ দুটো জ্যানো কথা  বলে...ছোটো খাটো চেহারা কিন্তু অজস্র পরিশ্রম করতে পারে . করতে পারে  ক্যান কী করতে হয়েছে ...
ওন্যের বাড়িতে ঘর মুছতে মুছতে যখন বাড়ির মালকিন  দের পায়ের ওপর পা তুলে টী.ভি দেখতে দ্যাখে ওর কী আর  ইচ্ছে করেনা  ,সাধ হয়না  সেইরখম একটা  জীবনযাপনের!! কিন্তু ওর মন টা এত ভাল,ও এটা ভগবানের ' বিচার' বলে মেনে নিয়েছে.......ময়না মেয়েটাই অমন....ওর জীবনের একটাই উদ্দ্যেশ্য ..ছেলেমেয়ে রা জ্যান ভাল শিক্ষা পায়ে...উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর  জ্যান কলেজের পড়া চালিয়ে যেতে পারে ...
আর পাঁচটা কাজের লোকের বরের মত ওর বর  যে মদ খেয়ে বাড়ি ফেরেনা আর  নিজের চাহিদা  মিটে যাওয়ার পর লাশের মত পড়ে ঘুময়না এটাই ওকে জীবনের সাথে লড়ে যাওয়ার ইন্ধন যুগিয়ে দেয়ে....
ময়না নিজে কিন্তু নেশা করে..সারাক্ষণ আঁচলে বেঁধে রাখা 'শিখর' থেকে টুক টুক করে খেতে থাকে...আর মাঝে মদ্ধে নিজের ননদের সাথে বসে তারি খায়ে.... একটা পাগলিই বটে...মিষ্টি পাগলী.....
মন্দিরে পৌঁছোতে প্রায় বিকেল পাঁচটা হয়ে গ্যাল... একদিকে  দুটো মেয়ে অন্যদিকে  কাতারে কাতারে মানুষ, শুধু কালো কালো মাথা গুলো দ্যাখা যাচ্ছে আর নানারকমের গায়ের গন্ধ নাকের মদ্ধে ভেসে আসছে..খালি পেটে চ্ছিল তো,তাই ওর মাঝে মাঝেই গা গুলিয়ে উঠচ্ছিল... তাও পুজো তো দীতেই হবে ..ঠাকুরের নাম নিয়ে এগিয়ে চল্ল....
পেচ্ছন থেকে কে একজন  গায়ে হাত দিয়ে জিগ্গেস করল " মা, বিপদতারিনির পুজো দেবেন? আমার সঙ্গে আসুন এদিকে চটি রেখে,'ডালা' টা কিনে নিন".... ঘুরে যেই লোক টার দিকে তাকাল এক ঝটকায়  স্মৃতি প্রায় বারো বচ্চর পিচ্ছিয়ে গ্যাল.......
ময়না একবার ভাবলো ভুল করচ্ছে, তারপর যখন দোকানের দিকে তাকালো ,আরও কয়েকটা চেনা মুখ দেখে বুঝতে পারল  কোনো ভুল করচ্ছেনা... ওরা ওরই আত্মীয়স্বজন...যেই ছেলে টা ডালা তৈরী করচ্ছিল কিচ্ছুদিন আগেই ওর বাড়িতে এসেচ্ছিল....আর যে পুরোহিত ওকে পুজর ডালা কেনার কথা বলছিল সে হল দুঃসম্পর্কের কাকাসসুর... এতক্ষণে  ওরাও ওকে দেখতে পেয়ে এগিয়ে এসেচ্ছিল.
ওর কী জ্যানো মনে হল ওদের কে বল্লো তাড়া আচ্ছে , আজ শুধু দর্শন করে 'মায়ের ' কাচ্ছেই দক্ষিনা দিয়ে প্রণাম করে নেবে ... দুই মেয়ের হাথ সখ্ত করে ধরে তাড়াতাড়ি মন্দিরের ভেতরে এগিয়ে গ্যাল........
ট্রেন এ যেতে যেতে ময়নার নিজের বিয়ের তারিখ তা মনে পরে গ্যালো... এই মন্দিরেই ওর বিয়ে হয়ছিল .. সেদিন মন্দির থেকে বেরিয়েই দ্যাখে আশেপাশে কিছু লোক ওর দিকে তাকিয়ে আচ্ছে...কারর হাথে বাটি..কারর হাথে থালা  ...কাপড় জামা ময়লা ... ছেঁড়া - খোঁড়া ..তারা যে ভিখিরী সেটা বোঝাই যাচ্ছিল ..একটা ছোট্ট হোটেলের দিকে খাওয়ার জন্যে যখন ওরা এগতে লাগল, দেখল ওরাও পেচ্ছনে পেচ্ছনে আশ্চ্ছে.... ফিশ ফিশ করে বর  কে জিগ্গেস করল " হ্যাঁ গো,এরা কে?তুমি কী চেন?"
ময়না বুঝতে পেরেচ্ছিল ওটাই ওদের 'কাজ'.....জিগেস করে বসলো -"কিন্তু ভিক্ষে ক্যান ? হাথ পা তো ঠিকই আচ্ছে,গতরে খেটে দুটো পৈসা  রোজগার  করতে পারেনা? " ওর বর ওকে চুপ করিয়ে দিয়ছিল. নতুন বিয়ে ,নতুন সংসার,এই সব নিয়ে আর মাথা ঘামায়নি ... ওর বর একটা কোম্পানির গাড়ি চালাত ...রবিবার বাড়িতে থাকতো, আজে বাজে গলীতে ঘোরা ফেরা করতনা , এটাই তার কাচ্ছে স্বর্গ তুল্য চ্ছিল....
রাতে বর  কে না জিগ্গেস করে থাকতে পারলনা .... নিমাই কাকার কথা বলতেই ওর বর  বল্ল "ক্যানো,সে তো আজ দেশের বাড়ি ছেড়ে বহু বছর ওই মন্দিরের কাছেই থাকে .... ভিক্ষে করে"
বিকেলের ঘটনার পর কেবল ভেবেই চলেছিল...এরা গ্রামে বসে দুটো ফ্যান ভাত খেলেও তো সেটা সততা আর সন্মান জনক হতো.....এই ভাবে পথের ধারে বসে লোকের কাচ্ছে ভিক্ষে করে খেতে মানুষ এর ভাল লাগে ?আত্যসন্মান বলে কী কিচ্ছুই নেই এদের ? তাতেও হোলনা...এখন আবার মানুষ কে ভগবানের বাড়িতে বসেই ঠকছে !! কী সাহস এদের!!
না , এদের সাথে কোনদিনও কোন সম্পর্ক রাখবেনা...ছেলেমেয়েদেরও রাখতে দেবেনা...ভগবান যখন জীবন টা দিয়েছেন ,তখন বেঁচে থাকার উপায় টাও উনি বলে দেবেন ...পথ উনিই দেখিয়ে দেবেন . দুটো হাথ , দুটো পা দিয়েছেন, দৃষ্টি দিয়েছেন, বুদ্ধি দিয়েছেন, ও ঠিক পারবে ....পারতেই হবে ....এই ভাবতে ভাবতে কখন যে ঘুমিয়ে পড়ল ... 



আজ মন দিয়ে পুজো টাও করতে পারলনা ...আজ ওর মনে হল এই ভীডের মদ্ধে লুকিয়ে বেরিয়ে পড়তে পারলেই ভাল... সেটাই করল ......বেরিয়েই প্রথমে ঢক ঢক করে দু গ্লাস লেবুর জল খে ফেল্ল.তারপর নিরামিষ খাবার কিনে দুই মেয়ের সাথে বসে খেয়ে দেয়ে বাড়ির পথে হানা দিল... পরের দিন ভোর ব্যালায় উঠে আবার ট্রেন ধরে কাজের বাড়ি....

এই তো , সব আমাদেরি আত্মিয়...দেশে খুব কষ্ট  তো , মন্দিরের কাচ্ছেই একটা বস্তি তে থাকে, ভিক্ষে করে....


ময়না যখন সেই কাকার পইতে আর টিকির কতা জানলো সে তো জ্যানো আকাশ থেকে পড়ল.... বুঝতেই পারচ্ছিলনা,কী করে সম্ভব হয় ... ওদের জ্ঞাতিগুষ্টি তে কেউ তো ব্রাহ্মণ নয়...
তবে এক ভাইপো কে ফোন করতেই সে বল্ল ওই কাকাই শুধু নয় অনেক অব্রাহ্মন লোকজন পেটের দায় এখন পুরুত সেজে ঘুরে বেড়াচ্ছে .....


মিষ্টি ময়নার ঠোঁটে একটা মিষ্টি হাঁসি .......

No comments:

Post a Comment

SOME OF MY FAVOURITE POSTS

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...